1. admin@dailyteligraf.com : admin :
বুধবার, ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১১:২৪ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
চট্রগ্রামে এবার ফুসফুসের বিভিন্ন রোগ নির্ণয় পরীক্ষা হবে এপিক হেলথ কেয়ার সেন্টারে সোনারগাঁও পৌর আ’লীগের কর্মী সম্মেলনে কবির হোসেনের বিশাল শোডাউনে যোগদান সোনারগাঁও পৌর আ’লীগের কর্মী সম্মেলনে আসাদুল ইসলাম আসাদ দৃষ্টিনন্দন শোডাউনে যোগদান সোনারগাঁয়ে যমুনা ব্যাংক লিমিটেড উপশাখার শুভ উদ্বোধন সোনারগাঁয়ে সন্ত্রাসীদের হাত থেকে যুবককে বাচাঁতে গিয়ে হামলার শিকার হলেন ব্যবসায়ী বান্দরবান পার্বত্য জেলার শ্রেষ্ঠ থানা নির্বাচিত লামা থানা চট্টগ্রামমে সাড়ে ৯ কোটি টাকা পেলেন ৪৪ ভূমি মালিক চট্টগ্রাম বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল থেকে পুলিশের সঙ্গে বিএনপির সংঘর্ষ, আটক ২০ চট্টগ্রাম বন্দরে যুক্তরাজ্যের রাজকীয় নৌবাহিনীর যুদ্ধজাহাজ নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে মনোনয়ন ফরম জমা দিলেন এডভোকেট মো: ফিরোজ মিয়া

ভোট পাবে না বলে বিএনপি সরকার উৎখাত করতে চায়: শেখ হাসিনা

  • আপডেট সময় : রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০২২
  • ৫৯ বার পঠিত

মাসুদ পারভেজ চীফ স্টাফ রিপোর্টারঃ চট্টগ্রাম থেকে: ভোট পাবে না বলে বিএনপি নির্বাচনে না গিয়ে সরকার উৎখাত করে ক্ষমতা দখল করতে চায় বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা।

রোববার (৪ ডিসেম্বর) বিকেলে ঐতিহাসিক পলোগ্রাউন্ডে চট্টগ্রাম মহানগর এবং উত্তর-দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় তিনি এ মন্তব্য করেন।
শেখ হাসিনা বলেন, ওরা (বিএনপি) জানে ইলেকশন হলে জনগণ তাদের ভোট দেবে না। তাই তারা ইলেকশন চায় না তারা সরকার উৎখাত করে, এমন কিছু আসুক যারা একেবারে নাগরদোলায় করে ক্ষমতায় বসিয়ে দেবে এটাই তারা আশা করে, এটাই তাদের বাস্তবতা।তারা জনগণের তোয়াক্কা করে না।তিনি বলেন, ওরা ভোটে যেতে চায় না।জিয়াউর রহমান যেমন জাতির পিতাকে হত্যা করে, সংবিধান লঙ্ঘন করে, সেনা আইন লঙ্ঘন করে ক্ষমতা দখল করেছিল। ওদের ধারণা ওইভাবেই তারা ক্ষমতায় যাবে।গণতান্ত্রিক ধারা তারা পছন্দ করে না।শেখ হাসিনা বলেন, অত্যন্ত দুঃখের সঙ্গে বলতে হয়, সেই ১০ ডিসেম্বর বিএনপির খুব প্রিয় একটা তারিখ। বোধ হয় পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর পদলেহনের দোসর ছিল বলেই ১০ ডিসেম্বর তারা ঢাকা শহর নাকি দখল করবে। আর আওয়ামী লীগ সরকারকে উৎখাত করবে।তিনি বলেন, আমি তাদের বলে দিতে চাই, খালেদা জিয়া ৯৬ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি জনগণের ভোট চুরি করে ক্ষমতায় এসেছিল। আর ভোট চুরি করে ক্ষমতায় এসেছিল বলেই তাকে বাংলাদেশের মানুষ মেনে নেয়নি। সারা বাংলাদেশ ফুঁসে উঠেছিল। জনতার মঞ্চ করেছিলাম আমরা। খালেদা জিয়া বাধ্য হয়েছিল পদত্যাগ করতে। দেড় মাসও যায়নি, খালেদা জিয়া পদত্যাগে বাধ্য হয়েছিল। সে কথা বিএনপির মনে রাখা উচিত। জনগণের ভোট যদি কেউ চুরি করে বাংলাদেশের মানুষ তা মেনে নেয় না। ওরা তা ভুলে গেছে।

বিএনপি-জামায়াত, যুদ্ধাপরাধী, স্বাধীনতাবিরোধীরা যাতে আর ক্ষমতায় আসতে না পারে সেজন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান তিনি।বিএনপির আন্দোলনের সমালোচনা করে আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, তাদের আন্দোলন হচ্ছে মানুষ খুন করা। বিএনপির দুইটা গুণ আছে, ভোট চুরি আর মানুষ খুন; ওইটা পারে।২০১৩, ১৪, ১৫ সালে বিএনপির আন্দোলনের কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, অগ্নিসন্ত্রাস করে মানুষ হত্যা, মানুষকে অগ্নিদগ্ধ করার জবাব একদিন খালেদা জিয়া-তারেক জিয়াকে দিতে হবে, এর হিসেব একদিন জনগণ নেবে।

রিজার্ভ এবং ব্যাংকে টাকা নেই বলে গুজব ছড়ানো হচ্ছে অভিযোগ করে শেখ হাসিনা বলেন, একটা গুজব ছড়ানো হচ্ছে, ডিজিটাল বাংলাদেশ করেছি আমি, আর সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করে অপপ্রচার করছে। অথচ এই কয়েকদিনে যারা টাকা তুলতে গেছে তারা সবাই তো টাকা তুলতে পেরেছে।

মানুষকে বিভ্রান্ত না হওয়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, এখানে আমার, একটা কথা আছে আপনি ব্যাংকে টাকা রাখবেন, না আপনি খাটের নিচে, বালিশের নিচে না আলমারিতে রাখবেন; চোরেও তো নিয়ে যেতে পারে। গুজবে মানুষ বিভ্রান্ত হয় টাকা তুলে ঘরে আনে, চোরেও নিতে পারে, আবার টাকা নিয়ে ব্যাংকে জমা রাখে। এই যে মানুষকে বিভ্রান্ত করা।

বিএনপি-জামায়াতের সঙ্গে চোরের সখ্যতা আছে কিনা এমন মন্তব্য করে তিনি বলেন, এই যে মানুষের সর্বনাশ করা এটাই কি বিএনপি-জামায়াত শিবিরের কাজ। নাকি তাদের সাথে চোরের সখ্যতা আছে, চোরকে চুরি করার সুযোগ করে দেওয়া।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর
© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২১  ডেইলি টেলিগ্রাফ
Theme Customized By Theme Park BD