1. admin@dailyteligraf.com : admin :
বুধবার, ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০১:০৮ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
চট্রগ্রামে এবার ফুসফুসের বিভিন্ন রোগ নির্ণয় পরীক্ষা হবে এপিক হেলথ কেয়ার সেন্টারে সোনারগাঁও পৌর আ’লীগের কর্মী সম্মেলনে কবির হোসেনের বিশাল শোডাউনে যোগদান সোনারগাঁও পৌর আ’লীগের কর্মী সম্মেলনে আসাদুল ইসলাম আসাদ দৃষ্টিনন্দন শোডাউনে যোগদান সোনারগাঁয়ে যমুনা ব্যাংক লিমিটেড উপশাখার শুভ উদ্বোধন সোনারগাঁয়ে সন্ত্রাসীদের হাত থেকে যুবককে বাচাঁতে গিয়ে হামলার শিকার হলেন ব্যবসায়ী বান্দরবান পার্বত্য জেলার শ্রেষ্ঠ থানা নির্বাচিত লামা থানা চট্টগ্রামমে সাড়ে ৯ কোটি টাকা পেলেন ৪৪ ভূমি মালিক চট্টগ্রাম বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল থেকে পুলিশের সঙ্গে বিএনপির সংঘর্ষ, আটক ২০ চট্টগ্রাম বন্দরে যুক্তরাজ্যের রাজকীয় নৌবাহিনীর যুদ্ধজাহাজ নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে মনোনয়ন ফরম জমা দিলেন এডভোকেট মো: ফিরোজ মিয়া

সোনারগাঁ পৌরসভার হাতকোপা গ্রামে এক গৃহবধু পরকীয়ার টানে দুইজন বাচ্চা সন্তান রেখে পালিয়েছে

  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ১৫০ বার পঠিত

মোক্তার হোসেনঃ পরকীয়া বর্তমানে একটি সামাজিক ব্যধিতে পরিনত হয়েছে। এটা এমনই একটি নেশা যেখানে স্নেহ মমতা, বন্ধন ও মাতৃত্ব সবকিছুই তুচ্ছ। এমনই একটি ঘটনা ঘটেছে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের হাতকোপা গ্রামে। সামিয়া আক্তার মনিরা নামে এক গৃহবধূ ৬ বছরের একটি ছেলে ৩ বছরের একটি মেয়ে ও স্বামীর সংসার ছেড়ে পরকীয়ার টানে নগদ টাকা ও স্বর্নলংকার নিয়ে প্রেমিকের হাত ধরে পালিয়ে যায়। ঘটনাটি ঘটে ১৪ই সেপ্টেম্বর বুধবার বিকাল ৩.৩০ ঘটিকায়।

এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী স্বামী ইঞ্জিনিয়ার ফাহিম ভুইঁয়া তার স্ত্রীর সন্ধান চেয়ে সোনারগাঁ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন যেটা তদন্ত করছেন থানার ডিউটি অফিসার মোঃ ইমরান।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, গত ৮ বছর আগে সোনারগাঁও পৌরসভার ৮ নং ওয়ার্ডের হাতকোপা গ্রামের তোফাজ্জল হোসেনের ছেলে প্রকৌশলী ফাহিম ভুইঁয়ার সাথে সোনারগাঁ উপজেলার কাঁচপুর ইউনিয়নের বাঘরী গ্রামের সামিয়া আক্তার মনিরার সাথে পারিবারিক সমঝোতায় বিয়ে হয়। বিয়ের পর তাদের সংসার ভালভাবেই চলছিল। গত ৮ বছরের সংসার জীবনে একটা ৬ বছরের ছেলে ও ৩ বছরের মেয়ের জনক জননী হন তারা। ফাহিম ভুইঁয়া প্রকৌশলী হওয়ায় পেশাগত দায়িত্বের কারনে মাঝে মাঝে ঘরের বাহিরে থাকতে হয় সেই সুযোগে হয়তো ফেসবুকের কল্যানে মাহাবুব নামে এক সৌদী প্রবাসীর সাথে পরকীয়ায় জরিয়ে পরে তার স্ত্রী সামিয়া আক্তার মনিরা। পরকীয়ায় আসক্ত হয়ে প্রায়ই গৃহবধূ মনিরা তার প্রেমিকের সাথে ফোনে দীর্ঘক্ষন কথা বলত। পরিবারের সদস্যরা তাকে জিজ্ঞেস করলে তার বন্ধু সাথে কথা বলছে বলে উত্তর দিত। বিষয়টি পরিবারের সদস্যরা তেমন গুরুত্ব দেয়নি। হঠাৎ গতকাল ১৪ই সেপ্টেম্বর বুধবার বিকাল ৩.৩০ ঘটিকায় ছেলেকে প্রাইভেট টিউশন থেকে আনতে যাওয়ার কথা বলে বাসা থেকে বের হয়ে সন্ধ্যা অবদী বাড়ি ফিরে না আসায় তার মোবাইলে ফোন দিয়ে ও আত্মীয় স্বজন, বন্ধু বান্ধবসহ সকল জায়গায় খোঁজ করেও না পাওয়ায় সন্দেহ হলে আমরা আলমারী চেক করে দেখি নগদ দেড় লাখ টাকা ও ১৪ ভরি স্বর্নলংকার ও দামী জামা কাপড় নেই। তখন খোজ নিয়ে জানতে পারি মাহবুব নামে তার প্রেমিকের সাথে সে পালিয়ে গেছে। আমি পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের সাথে আলোচনা করে আমার স্ত্রী ও টাকা স্বর্নলংকার ফিরে পেতে এবং প্রতারক মাহবুবকে আইনের আওতায় আনতে শরণাপন্ন হলাম।
এব্যাপারে অভিযোগ পেয়ে তাৎক্ষণিক ভাবে থানার ডিউটি অফিসার মোঃ ইমরান ভুক্তভোগীর বাসায় গিয়ে ঘটনা সম্পর্কে তদন্ত করছেন এবং ঘটনার সঠিক তদন্ত সাপেক্ষে আইন -আনুক ব‍্যবস্থা গ্রহন করিবেন বলে জানিয়েছেন।

কেউ যদি তাদের সন্ধান পেয়ে থাকেন তাহলে তাদেরকে আইনের হাতে তুলে দিবেন অন‍্যথায় এই মোবাইল নাম্বারে যোগাযোগ করবেন।-01820081318/ 01983591035 ।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর
© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২১  ডেইলি টেলিগ্রাফ
Theme Customized By Theme Park BD